April 20, 2024, 11:19 am

ইমরানপন্থি স্লোগানে উত্তাল পাকিস্তান পার্লামেন্ট

ইমরানপন্থি স্লোগানে উত্তাল পাকিস্তান পার্লামেন্ট

আজ নতুন পার্লামেন্টের প্রথম অধিবেশনে নির্বাচিত এমপিরা শপথ গ্রহণ করেন। একপর্যায়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানপন্থিদের স্লোগানে হঠাৎ উত্তাল হয়ে উঠে পাকিস্তানের পার্লামেন্ট। ইমরান খানকে উদ্দেশ করে স্লোগান শুরু করেন তার দল সমর্থিত স্বতন্ত্র এমপিরা। তারা যোগ দিয়েছেন সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিল (এসআইসি) নামের দলটির সঙ্গে। শপথ নেওয়ার পর তারা একযোগে ‘কয়েদি নাম্বার ৮০৪’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন।

এদিন কমপক্ষে এক ঘণ্টা বিলম্বে জাতীয় পরিষদ হিসেবে পরিচিত পার্লামেন্টের উদ্বোধনী অধিবেশন শুরু হয়। এরপর নবনির্বাচিত এমপিরা শপথ নেন। শুক্রবার ১ মার্চ স্পিকার এবং ডেপুটি স্পিকার নির্বাচন করা হবে। ৪ মার্চ জাতীয় পরিষদ নির্বাচন করবে প্রধানমন্ত্রী।

বিদায়ী স্পিকার রাজা পারভেজ আশরাফের সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। প্রেসিডেন্ট ড. আরিফ আলভির অনিচ্ছা সত্ত্বেও গত সোমবার পরিষদের সচিবালয় উদ্বোধনী অধিবেশন আহ্বান করা হয়; কিন্তু প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে- এমন হুঁশিয়ারি দেয় রাজনৈতিক দলগুলো। বলা হয়, তাকে অভিশংসন করা হবে। এমন হুমকির পর প্রেসিডেন্ট শেষপর্যন্ত জাতীয় পরিষদের অধিবেশন আহ্বান করেন।

অনলাইন জিও নিউজ জানিয়েছে, পিটিআই সমর্থিত এমপিদের প্রতিবাদ বিক্ষোভের মধ্যেই নির্বাচিত এমপিরা শপথ নিলেন। এটি ১৬তম জাতীয় পরিষদের প্রথম অধিবেশন। এ অধিবেশনে পার্লামেন্টের ২৮২ জন সদস্যকে শপথবাক্য পাঠ করান স্পিকার রাজা পারভেজ আশরাফ। এর মধ্যে ছিলেন পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএলএন) প্রেসিডেন্ট শেহবাজ শরীফ, পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) সহ-সভাপতি ও সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি, দলের চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি, জমিয়তে উলেমায়ে ইসলাম-ফজলের (জেইউআইএফ) প্রধান মাওলানা ফজলুর রেহমান।

অধিবেশনের শুরুতে জাতীয় সঙ্গীত শেষ হওয়ার পর হট্টগোল হয়। এসআইসিতে যোগদানকারী পিটিআই সমর্থিত স্বতন্ত্র এমপিরা স্পিকারের ডায়াস ঘিরে এ হট্টগোল করতে থাকেন। দলটি আগে থেকেই ঘোষণা দিয়েছে- নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির বিরুদ্ধে এ অধিবেশনে তারা প্রতিবাদ জানাবে।

এমপিদের আসন নিয়ে বসার অনুরোধ করেন স্পিকার। স্পিকার শপথ বাক্য পড়ানো শেষ করামাত্রই এসআইসির এমপিরা স্পিকারের কাছে জানতে চান- তাদের পয়েন্ট অব অর্ডারে কথা বলতে দেওয়া হবে কিনা; কিন্তু তাদের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেন স্পিকার।

তিনি বলেন, সদস্যরা রেজিস্টারে স্বাক্ষর করার পর পয়েন্ট অব অর্ডারে তারা কথা বলতে পারবেন। স্বাক্ষর শেষ করেই এসআইসির এমপিরা ইমরানপন্থি স্লোগান শুরু করে দেন। জবাবে পিএমএলএনের এমপিরা পার্লামেন্টের ভিতরে ‘ঘড়ি চোর’ বলে স্লোগান শুরু করেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2023 satkhirachitra.com
Design & Developed BY CodesHost Limited