May 21, 2024, 10:13 pm

সাতক্ষীরায় শশিুসন্তানকে হত্যা করার অভযিোগ পতিার বরিুদ্ধে

সাতক্ষীরায় শশিুসন্তানকে হত্যা করার অভযিোগ পতিার বরিুদ্ধে

সাতক্ষীরার সদর উপজলোর ধলবাড়য়িা গ্রামে দ্বতিীয় শ্রণেতিে পড়–য়া ছলেে আরফি বল্লিাহকে হত্যা করে ঘরে আগুন দওেয়ার অভযিোগ উঠছেে তার মাদকাসক্ত বাবা ইয়াসনি আলীর বরিুদ্ধ।ে শুক্রবার ভোররাতে ধলাবাড়য়িা মাঠপাড়ার আশ্রয়ণ প্রকল্পে এ ঘটনা ঘট।ে এঘটনায় ইয়াসনি আলীকে আটক করছেে সদর থানার পুলশি।
আরফি বল্লিাহ ধলবাড়য়িা সরকারি প্রাথমকি বর্দ্যিালয়রে দ্বতিীয় শ্রণেরি ছাত্র।
আরফিরে মা রোকয়ো খাতুন জানান, ‘‘সদর উপজলোর চুপড়য়িা গ্রামরে নূর ইসলামরে ছলেে ইয়াছনি আলীর সাথে আমার ১০ বছর আগে বয়িে হয়। তনি বছর আগে ধলবাড়য়িা মাঠপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীর দওেয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পরে ঘর পান তনি।ি এরপর থকেে একমাত্র সন্তান আরফিবল্লিাহসহ স্বামীকে নয়িে আমি সখোনে বসবাস করতে থাক।ি ’’
রোকয়ো খাতুন আরো বলনে, ‘‘ আমার স্বামী মাদকাসক্ত ও অস্ত্র মামলার আসামী। এ নয়িে স্বামীর সঙ্গে আমার বরিোধ লগেইে থাক।ে গত মঙ্গলবার স্বামী আমাকে মারপটি করলে আরফিকে নয়িে আমি আমার নানা ধুলহির গ্রামরে ইজ্জত আলীর বাড়তিে আশ্রয় নইে। বৃহষ্পতবিার বকিলে সাড়ে চারটার দকিে নানার বাড়ি থকেে আরফিকে নয়িে চলে আসে ইয়াছনি। পরে আর মোবাইলে যোগাযোগ হয়ন।ি বৃহষ্পতবিার ভোর সাড়ে তনিটার দকিে মোবাইল ফোনে খবর পাই,আমাদরে বাড়ি আগুনে পুড়ে গছে।ে তাৎক্ষণকি স্বজনদরে নয়িে বাড়তিে এসে জানতে পার,ি ছলেকেে ঘররে মধ্যে হত্যা করে দরজা বাইরে থকেে লাগয়িে ঘরে আগুন দয়িছেে ইয়াসনি।’’
আরফি বল্লিাহর দাদী মলুদা খাতুন জানান, ‘‘ ইয়াছনি তার ছলেকেে হত্যা করে ঘরে আগুন লাগয়িে তার মামার বাড়ি আগরদাড়তিে চলে যায়। সখোনে সে সামনে যাকে পয়েছে,েতাকে পটিয়িছে।ে পরে ইয়াছনিকে ছকিল দয়িে বঁেধে রখেে পুলশিে সোর্পদ করা হয়।’’
ধলবাড়য়িা সরকারি প্রাথমকি বদ্যিালয়রে সহকারি শক্ষিক রোকন আল জামান জানান, আরফি বল্লিাহ এবার দ্বতিীয় শ্রণেতিে পড়াশুনা উঠছে।ে এর আগে সে কয়কে পারা কোরআন মুখস্ত করছেলি।’’ এঘটনায় অভযিুক্ত ইয়াসনি আলীর র্সবােচ্চ শাস্তি দাবি করনে রোকন আল জামান।
সাতক্ষীরা সদর থানার পুলশি পরর্দিশক নজরুল ইসলাম জানান, ইয়াছনি আলীকে আটক করা হয়ছে।ে সম্ভবত,সে মাদকাসক্ত। থানায় সে অসংলগ্ন আচরণ করছ।ে ছলেটেরি দহে পুড়ে কঙ্কাল হয়ে গছে।ে চনো যাচ্ছে না,এমন অবস্থা। ময়নাতদন্তরে জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল র্মগে পাঠানো হয়ছে।ে ময়নাতদন্তরে পরে জানা যাব,েমৃত্যুর প্রকৃত কারণ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2023 satkhirachitra.com
Design & Developed BY CodesHost Limited