May 21, 2024, 11:46 pm

যতদিন বাঁচব ক্রিকেটের সঙ্গেই থাকব—-প্রধান নির্বাচক নান্নু

যতদিন বাঁচব ক্রিকেটের সঙ্গেই থাকব—-প্রধান নির্বাচক নান্নু

স্পোর্টস রিপোর্টার: দীর্ঘ ১০ বছর ধরে নির্বাচকের দায়িত্ব পালন করছেন মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। বাংলাদেশের টেস্ট পূর্ববর্তী যুগে তাকে দেশের সেরা ব্যাটারদের একজন হিসেবেও বিবেচনা করেন সবাই। এরপর কিছুদিন যুক্ত ছিলেন কোচিংয়ের সঙ্গেও। তবে সব ছাপিয়ে নান্নুর এখন সবচেয়ে বড় পরিচয় জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক। দীর্ঘদিনের এই দায়িত্ব এবার ছাড়তে হতে পারে তাকে। আগামী ৩১ ডিসেম্বর শেষ হচ্ছে তার নেতৃত্বাধীন নির্বাচক প্যানেলের মেয়াদ। একাধিক মেয়াদে কাজ করা সাবেক এই ক্রিকেটারের মেয়াদ শেষ হওয়া নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ আলোচনা হয়েছে। জাতীয় দলের স্কোয়াড নির্বাচন ও মাঠে পারফরম্যান্সে ব্যর্থতার কারণে নির্বাচক প্যানেলে নতুন কাউকে নিয়োগ দেওয়ারও দাবি ওঠে। এরই মাঝে খবর ছড়িয়েছে- মেয়াদ শেষে প্রধান নির্বাচক নান্নু ম্যাচ রেফারি হতে চান। বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন তিনি। এ নিয়ে গতকাল মোহাম্মদপুরে নিজের বাসায় নান্নু বলেন, ‘আজকে দশ বছর ধরে আমরা কাজ করছি, এভাবেই যাচ্ছে। কোনো সময় কিন্তু বোর্ড বলেনি যে চুক্তি শেষ বা এইটা। আমরা কাজ করে যাচ্ছি, বোর্ড যদি মনে করে… কিন্তু বোর্ড মিটিং ছাড়া সিদ্ধান্ত নিতে পারে না; সুতরাং তখনই সিদ্ধান্ত জানা যাবে। এমনও গেছে যে চুক্তি নাই, এক বছর কাজ করার পর চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। আমাদের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চুক্তি আছে, এটা বোর্ড মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচক প্যানেল রাখবে কি রাখবে না।‘ নির্বাচকের দায়িত্বে না থাকলে কী করবেন নান্নু? এমন প্রশ্নও আসছে। এর মধ্যে শোনা যাচ্ছে, ম্যাচ রেফারি হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। তবে এ বিষয়ে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন নান্নু। ইঙ্গিত দিয়েছেন কোচিংয়ে জড়ানোরও। তিনি বলেন, ‘এটা আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। এটা তো কেউ আমাকে জোর করে চাপিয়ে দিতে পারে না। আমি নির্বাচকের আগে কোয়ালিফাইড লেভেল থ্রি কোচ। আমার তো ওদিক দিয়েও চিন্তা-ভাবনা আছে। খেলা ছাড়ার পর ক্রিকেটের সঙ্গে সময় কাটিয়েছি। বাকি জীবনটা তো ক্রিকেটের সঙ্গে কাটবে। আমি কী করবো এটার সিদ্ধান্ত তো আমি নেবো। ওটার পরিকল্পনা আমি তখন করবো। বোর্ড তো এখনও আমাকে কিছু জানায়নি। মাননীয় বোর্ড সভাপতি যখন জানাবে আর কন্টিনিউ করছি না। তখন আমার সিদ্ধান্ত নেবো কী করবো। আমাকে তো কিছু করতে হবে। ক্রিকেট দিয়েই তো সারাজীবন পার করে দিয়েছি। যে কয়দিন বাঁচবো কিছু তো করতে হবে। ক্রিকেটের সঙ্গেই থাকবো।’ এছাড়া বিসিবির সঙ্গে নতুন করে চুক্তি নিয়ে নান্নু বলেন, ‘আজকে দশ বছর ধরে আমরা কাজ করছি, এভাবেই যাচ্ছে। কোনো সময় কিন্তু বোর্ড বলেনি যে চুক্তি শেষ বা এইটা। আমরা কাজ করে যাচ্ছি, বোর্ড যদি মনে করে…কিন্তু বোর্ড মিটিং ছাড়া সিদ্ধান্ত নিতে পারে না; সুতরাং তখনই সিদ্ধান্ত জানা যাবে। এমনও গেছে যে চুক্তি নাই, এক বছর কাজ করার পর চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। আমাদের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চুক্তি আছে, এটা বোর্ড মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচক প্যানেল রাখবে কি রাখবে না।’ উল্লেখ্য, প্রধান নির্বাচক হওয়ার আগে ২০১১ সাল থেকে বিসিবির নির্বাচক প্যানেলে ছিলেন নান্নু। পাঁচ বছর পর প্রধান নির্বাচক ফারুক আহমেদ পদত্যাগ করলে তিনি তার স্থলাভিষিক্ত হন। পরে ২০১৯ সালে পুনরায় মেয়াদ বাড়ানো হয় নান্নুর। তার সঙ্গে বর্তমান নির্বাচক প্যানেলে আছেন সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার ও স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2023 satkhirachitra.com
Design & Developed BY CodesHost Limited