May 21, 2024, 11:34 pm

আশরাফুজ্জামান আশুর সভায় জনতার ঢল

আশরাফুজ্জামান আশুর সভায় জনতার ঢল

নিজস্ব প্রতিনিধি: বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল, বঙ্গবন্ধু টানেলসহ সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। উন্নয়নের ঢেউ খুলনা যশোর পর্যন্ত পৌছালেও সাতক্ষীরা সদরের মানুষ আজও অবহেলিত রয়ে গেছে। সদরের মানুষের উন্নয়ন না হলেও সদরের আসনের এমপি সাহেব এবং তার আশেপাশের মানুষের পকেটের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। ১০বছর ধরে সদরে দুর্নীতি এবং অপশাসন চালানো হয়েছে। গত ১০বছরের মানুষের পাশে না গেলেও এখন ভোটের জন্য ধর্ণা দিচ্ছে। তাদের পাশের লোকজনগুলো আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়েছে। যারা কলাগাছ হয়েছে তাদের কথা শোনা যাবে না। ইতোমধ্যে সবাই তাকে বয়কট করেছে। আপনারা শুনেছেন তাকে এলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। মানুষ এখন দুর্নীতি অপশাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠেছে।
মঙ্গলবার দিনব্যাপী ৭জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সাতক্ষীরা সদর আসনে লাঙ্গল প্রতীক বিজয়ের লক্ষ্যে নির্বাচনী জনসভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
বক্তরা আরও বলেন, নানা অপকর্মের কারণে এমপি রবিকে আওয়ামী লীগ থেকে লাল কার্ড দেওয়া হয়েছে। রবি এমপি হওয়ার পর মানুষের সাথে বাজে আচরণ করেছেন। ১৯৭৪ সালে সাতক্ষীরা থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন। ২০১৩ সালেও পালিয়ে গিয়েছিলেন। তিনি মানুষের বিপদে পাশে থাকেন না। ২০১৪ সালে ডামি প্রার্থী ছিলেন। জাতীয় পার্টির জব্বার সাহেব মহাজোটের প্রার্থী ছিলেন। তিনি অসুস্থতার কারণে প্রত্যাহার করে নেওয়ায় আজ রবি সাহেব এমপি হয়েছিলেন। ওনি স্বশিক্ষিত ওনার কোন সনদপত্র নেই। ওনি কোন দিন কোন স্কুল কলেজে যাননি। কথায় কথায় ভুল ইংরেজি বলেন। আওয়ামী লীগ পরিবারের কারো চাকরি দেননি। কোন যোগ্যতা সম্পন্ন কারো চাকরি না দিয়ে টাকা খেয়ে দুর্নীতি করে অযোগ্য ব্যক্তিদের চাকরি দিয়েছেন। নিয়োগ বাণিজ্য করে কালো টাকার পাহাড় গড়েছেন। এমপির বাড়িতে কোন দরকারে কেউ গেলে ইংরেজিতে গালি বের করে দেন। কিন্তু আমাদের প্রার্থী সেটা করবেন না। তিনি ভালো মানুষ। সবজায়গা লাঙলের গণজোয়ার বইছে। আশু সাহেব ভালো মানুষ আপনারা সবাই তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচন করবেন। তিনি এমপি হলে দুর্নীতি মুক্ত করে ভালো সাতক্ষীরা গড়া হবে।
বক্তারা আরও বলেন, আশরাফুজ্জামান আশু জাপার প্রার্থী। দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত চিঠি দিয়েছেন। কোন প্রার্থী প্রত্যাহার করলে অন্যের পক্ষে কাজ করে না। কিন্তু আসাদুজ্জামান বাবু আশরাফুজ্জামান আশু পক্ষে কাজ করছেন। রবি সাহেব সব জায়গায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী বলে বেড়াচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী জনসভায় তিনি তো বলতে পারতেন। কিন্তু তার কোন বলার মুখ নেই। তার সব আমলনামা প্রধানমন্ত্রীর হাতে। সেজন্য তাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। জোটের কারণে এখানে লাঙল দেওয়া হয়েছে। আমরা সবাই আগামী ৭ তারিখে লাঙলে ভোট দিয়ে জয় যুক্ত করে প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দেব।
সাতক্ষীরা-২ আসনে লাঙ্গল প্রতীকে মহাজোটের সংসদ সদস্য পদ প্রার্থী আশরাফুজ্জামান আশু বলেন, আপনার জানেন সদর আসনের সংসদ সদস্য তার দায়িত্ব পালনে ব্যার্থ হয়েছে। সব কিছুতেই দুর্নীতি করেছেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সকল প্রতিষ্ঠানে নিয়োগে আত্মীয়করণ করেছেন। এর আগে মহাজোটের এমপি আব্দুল জব্বার সাহেবের আমলে কোন দুর্নীতি হয়নি। আমি বিজয়ী হলে আপনাদের সবাইকে সাথে নিয়ে দুর্নীতিমুক্ত সাতক্ষীরা গড়ে তোলা হবে। সদরের অনেক এলাকায় বছরের অধিকাংশ সময় জলাবদ্ধতা থাকে। আমি বিজয়ী হলে জলাবদ্ধতা নিরসনের কাজ করবো এবং বেকারমুক্ত সাতক্ষীরা গড়ে তুলবো। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রার্থী। আমার পিতা কৃষক ছিলেন। আমি কৃষকদের কষ্ট বুঝি। কোন অনুদানের টাকা আমার পেটে যাবে না। আপনাদের সবাইকে সাথে নিয়ে কাজ করবো। আগামী ৭ তারিখে আমাকে ভোট দিয়ে আপনাদের সেবক হওয়ার সুযোগ দিবেন।
এদিকে মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টায় কুশখালী ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত¡রে উক্ত নির্বাচনী জনসভায় ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি গোলাম হোসেনের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাহিদ হাসানের সঞ্চালনায় নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা-২ আসনে লাঙ্গল প্রতিকে মহাজোটের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী আশরাফুজ্জামান আশু। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আবু আহমেদ, সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সদস্য এসএম শওকত হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, জেলা যুবলীগের আহবায়ক মিজানুর রহমান, শীবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত আলী। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা জাতীয় পার্টির সহ-সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক আকরাম হোসেন খান বাপ্পি, সদর উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক শেখ শরিফুল ইসলাম বিপুল, পৌর ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী বাবু, সদর উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মঈনুল ইসলাম, ছাত্রনেতা জাহিদ হাসান বাপ্পি, ফরহাদ প্রমুখ। এসময় বক্তারা আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে ভোট দিয়ে আশরাফুজ্জামান আশুকে বিজয়ী করার আহবান জানান।
এদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঘোনা বাজারে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচনী জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। ঘোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার রহিলউদ্দীনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দীকের সঞ্চালনায় নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা-২ আসনে মহাজোটের লাঙ্গল প্রতীকে সংসদ সদস্য প্রার্থী আশরাফুজ্জামান আশু। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু আহমেদ, সহ সভাপতি শহিদুল ইসলাম, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ডা. মুনছুর আহমেদ, সদস্য এসএম শওকত হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আব্দুর রশিদ, সহ-সভাপতি আসাদুজ্জামান অসলে, সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, জেলা যুবলীগের আহবায়ক মিজানুর রহমান। এসময় বক্তারা আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে ভোট দিয়ে আশরাফুজ্জামান আশুকে বিজয়ী করার আহবান জানান।
এদিকে আশরাফুজ্জামান আশুকে বিজয়ী করতে সদরের তালতলা-গোপীনাথপুরে নির্বাচনী পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধা সাড়ে ৭টায় গোপীনাথপুর মোড়ে ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি সদস্য মনিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে লাবলা ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রইফ বাবুর সঞ্চালনায় পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক আসাদুজ্জামান বাবু। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা জাতীয় পার্টির অর্থ সম্পাদক বিশিষ্ঠ ঠিকাদার আশরাফ আলী, জেলা ছাত্রসমাজের সভাপতি পৌর কাউন্সিলর কায়ছারুজ্জামান হিমেল, লাবসা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সুফিয়ান সজল, সাংগঠনিক সম্পাদক মহসেনুল হাবিব মিন্টু, লাবসা ইউপি সদস্য নজিবুল্লাহ টুটুল, জাতীয় পার্টির নেতা সাবেক সিবিএ নেতা নুরুল আমিন প্রমুখ। এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে ভোট দিয়ে আশরাফুজ্জামান আশুকে বিজয়ী করার আহবান জানান।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2023 satkhirachitra.com
Design & Developed BY CodesHost Limited