সাতক্ষীরায় পতিতাবৃত্তির অভিযোগে ৩ পতিতা , ৪ দালাল ও ২ খদ্দের আটক

0
27

স্টাফি রির্পোটার: সাতক্ষীরায় ৪ দালাল, ২ খদ্দেরসহ ৩ পতিতাকে আটক করেছে পুলিশ। ১ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখ বিকালে সাতক্ষীরা সদরের মিলবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের কে আটক করে।
আটককৃতরা হলেন, সাতক্ষীরা শহরের পলাশপোল এলাকার আব্দুল হান্নান মোল্লার পুত্র রাজু মোল্লা, মাগুরা গ্রামের সাইফুল ইসলামের পুত্র দেলোয়ার হোসেন, একই এলাকার মৃত. ছাকার আলী কচির পুত্র সাইফুল ইসলাম, আফসার সরদারের পুত্র আবু বক্কার সিদ্দিক শুভ, গরবদাড়ী গ্রামের শহিদুল ইসলামের পুত্র আমিনুল ইসলাম, বরিশাল কোতয়ালীর কালিবাড়ী গ্রামের নিখিল নন্দির পুত্র ব্র্যাকের অফিসার মিঠুন নন্দি, সাতক্ষীরা সদরের বেতলা গ্রামের জনি সরদারের স্ত্রী রুমা খাতুন উরফে ইতি, আশাশুনি কুন্দুরিয়ার মৃত ইসমাইল গাজীর স্ত্রী খালেদা আক্তার মিতা, মাগুরার দেলোয়ার হোসেন সোহানের স্ত্রীর সাদিয়া সুলতানা।
শুক্রবার বেলা ১২টায় সাতক্ষীরা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) মির্জা সালাউদ্দীন প্রেস বিফ্রিংয়ে এ তথ্য জানান। এসময় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত আসাদুজ্জামানসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
প্রেস বিফ্রিয়ে তিনি জানান , গত ১ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ গোপন সংবাদে জানতে পারেন শহরের মিলবাজার এলাকায় ৩ জন পতিতা তাদের ৪ দালালদের মাধ্যমে ২জন খদ্দের নিয়ে পতিতা বৃত্তির উদ্দেশ্যে মাগুরা এলাকার সাইফুল ইসলামের বাড়িতে অবস্থান করছেন। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে কাটিয়া ফার্ড়ীঁর ইনচার্জ টিএসআই শেখ আজাদুল ইসলাম, এ এস আই শেখ মোস্তাক আহম্মদসহ তাদের সঙ্গীয় ফোর্স সেখানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করে।
উক্ত পতিতারা মোবাইলের পরিচয়ের মাধ্যমে এবং তাদের দালালদের মাধ্যমে খরিদ্দার সংগ্রহ করে সুবিধামত স্থানে আটক করে বিকাশ, রকেট এবং অন্যান্য ভাবে দীর্ঘদিন যাবৎ অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। এঘটনায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের মানব পাচার ও প্রতিরোধ দমন আইনে ১২(১)১৩/৮ধারায় মামলায় দায়ের করেন। যার নং ০৪। এসময় তাদের কাছ থেকে ১৮ হাজার ১০০ নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়।
এছাড়া সাতক্ষীরায় পতিতাবৃত্তি বন্ধ করতে এই প্রথম পতিতা এবং দালালদের বিরুদ্ধে উক্ত ধারায় মামলা দেওয়া হয়েছে। যাতে তারা এধরনের পেশা থেকে দুরে থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here