তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তারের ৩ দিন পর জামিন পেলেন সাতক্ষীরার মন্ময় মনির

0
40

সাতক্ষীরা: তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক প্রভাষক মনিরুজ্জামান মনির ওরফে মন্ময় মনির জামিনে মুক্তি পেয়েছেন । রোববার বিকালে জামিন পেয়ে কারাগার থেকে বাড়ি ফিরেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
প্রভাষক মনিরুজ্জামান মন্ময় মনির জানান, ফেসবুকে একটি পোস্ট দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। যদিও পোস্টে তিনি আরো নাম উল্লেখ করেননি।
উক্ত মামলায় তিনি ২৪ জুন আটক হন। রোববার সাতক্ষীরার বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জামিন আবেদন করলে আদালত তাকে জামিনে মুক্তি দেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) তার কর্মস্থল সীমান্ত আদর্শ কলেজ থেকে তাকে সাময়িক বহিষ্কার করনা হয়।

তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক প্রভাষক মনিরুজ্জামান মনির ওরফে মন্ময় মনিরকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে সাতক্ষীরার সীমান্ত আদর্শ কলেজ কর্তৃপক্ষ। তিনি ওই কলেজের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত।
বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) সীমান্ত আদর্শ কলেজের প্যাডে কলেজের অধ্যক্ষ আজিজুর রহমান স্বাক্ষরিত (স্মারক নং সীআক/১৯৯৩/২০২০তারিখ ২৫ জুন ২০২০) এক চিঠিতে প্রভাষক মন্ময় মনিরের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।
এব্যাপারে সীমান্ত আদর্শ কলেজের অধ্যক্ষ সাংবাদিককে জানান, কলেজের গভর্নিং বডির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অত্র কলেজের সমাজকর্ম বিষয়ের প্রভাষক মনিরুজ্জামান (মন্ময় মনির) কে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত সংক্রান্ত চিঠি তার স্ত্রীর নিকট পাঠালে তার স্ত্রী নাজনীন নাহার সেটি গ্রহণ করেছেন।
মন্ময় মনিরের প্রকৃত নাম মনিরুজ্জামান। তিনি কলারোয়া উপজেলার মুরারীকাটি গ্রামের মৃত আয়েজ উদ্দীন সরদারের পুত্র ও সীমান্ত আদর্শ কলেজের প্রভাষক।
উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রখ্যাত নেতার মৃত্যু নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য পোস্ট করেন প্রভাষক মন্ময় মনির। এতে সংক্ষুব্ধ হয়ে কলারোয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ সাগর হোসেনের ১৪জুন কলারোয়া থানায় মন্ময় মনিরকে আসামি করে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা (নং-১০) দায়ের করেন। পরবর্তীতে গত বুধবার পুলিশ তাকে পৌরসভার মুরারীকাটি গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে সাতক্ষীরার বিজ্ঞ আদালত প্রেরণ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here